পবিত্র মক্কার দিকে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ :: অটো চালাচ্ছেন নরেন্দ্র মোদি ! :: ১৫০ সন্তানের বাবা ভারতীয় রেলকর্মী :: যিশুখ্রিস্টের ‘কবর’ উন্মুক্ত করল বিজ্ঞানীরা :: শিশুর ঠোঁটে চুমু দিলে ভয়ানক বিপদ :: বিড়ালের মাংসের বিরিয়ানি খাচ্ছেন না তো? :: 'প্রেমিকদের' দেয়া ২০ আইফোন বিক্রি করে বাড়ি ক্রয়! ::
আজ শনিবার , ১০ ডিসেম্বর ২০১৬ ইং  , ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঃ , ২৭ সফর ১৪৩৮ হিঃ
প্রধান প্রতিবেদন
তেলের রাজনীতিতে আমরা বেমানান

আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান বলেছেন, “আমরা যারা ’৭৫-পরবর্তী সময়ে রাজনীতিতে এসেছি তারা ‘তেলের’ রাজনীতিতে বড় বেশি বেমানান। কারণ আমরা বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার চাইতে বিবেকের তাড়নায় রাজনীতিতে এসেছি। আর এ নীতিতে অটুট থাকারাই দলের জন্য, নেত্রীর জন্য রাস্তায় জীবন দিতে পারেন।”

শনিবার বিকালে শহরের মাসদাইর পৌর ওসমানী স্টেডিয়ামসংলগ্ন শামসুজ্জোহা ক্রীড়া কমপ্লেক্স মাঠে মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে শামীম ওসমান এসব কথা বলেন।

শামীম ওসমান আরও বলেন, দেশের মানুষের ভোটে ক্ষমতায় আর আসতে পারবে না জেনেই আবারও জঙ্গিবাদের পথ অনুসরণ করছে বিএনপি। কারণ বিএনপি নেতা সামসুজ্জামান দুদু বলেছেন- বাংলাদেশের মানুষ নাকি কাশ্মীরের পক্ষে আছে। এমন কথা বলে লস্কর-ই-তয়ৈবা আর জঈশ-ই-মোহাম্মদের মতো উগ্র মৌলবাদী জঙ্গি সংগঠনকে সমর্থন করছে বিএনপি। অথচ তারাই কয়েকদিন আগে বিজেপি নেতাদের দ্বারে দ্বারে গিয়েছিলেন।

‘সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, মাদক নির্মূল এবং আধুনিক নারায়ণগঞ্জ গড়ার প্রত্যয়’ শীর্ষক ব্যানারে অনুষ্ঠিত জনসভায় সভাপতিত্ব করেন মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শামীম ওসমান এমপি বলেন, দেশের জিডিপি আজ ৭ দশমিক ১১ শতাংশ। বাংলাদেশের উন্নয়নে শেখ হাসিনা সারা বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। বিশ্বনেতারা বাংলাদেশের উন্নয়ন নিয়ে নেত্রীকে প্রশ্ন করেন- আপনি কোনো জাদু জানেন? কিন্তু এ উন্নয়ন যাদের জন্য সেই ভবিষ্যৎ প্রজন্ম ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে শুধু মাদকের কারণে। ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে মাদকের গ্রাস থেকে রক্ষা করতে না পারলে এসব অবকাঠামোগত উন্নয়ন দিয়ে কোনো লাভ হবে না। তাই মাদক নির্মূল করতে শুধু প্রশাসন আর রাজনৈতকি নেতারাই না, প্রতিটি দেশপ্রেমিক নাগরিকের নৈতিক দায়িত্ব রয়েছে। মাদক নির্মূলে প্রতিটি পাড়া-মহল্লায় ভালো মানুষদের নিয়ে পঞ্চায়েত গঠন করা হবে। তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জের মানুষকে সঙ্গে নিয়ে পুনর্বাসনের মাধ্যমে দু’শ বছরের নিষিদ্ধ পল্লী যখন উচ্ছেদ করা গেছে, তখন মাদক নির্মূল করা অবশ্যই সম্ভব হবে বলে আমার বিশ্বাস।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের আসন্ন নির্বাচনের প্রসঙ্গ টেনে শামীম ওসমান বলেন, রাজনীতিতে যে ভালোবাসা ও সম্মান পেয়েছি, এরপর আর চাওয়া-পাওয়ার কিছু নেই। আমরা একটি আধুনিক সুন্দর নারায়ণগঞ্জ গড়তে চাই। কিন্তু দুর্নীতি, স্বেচ্ছাচারিতা আর অনিয়ম চাই না। আমি নারায়ণগঞ্জ সিটি মেয়র আইভীকে বারবার বলে আসছি- দলের নেতাকর্মীদের কাছে অতীতের ভুলের জন্য ক্ষমা চান। কারণ, তিনি আমাদের মাতৃতুল্য নেত্রীকে নিয়ে কটাক্ষ করে সমালোচনা করেছেন। ১/১১-এর দোসরদের নিয়ে রাজনীতি করেছেন। কিন্তু তিনি ক্ষমা চাননি। এত দাম্ভিকতা ভালো নয়। নেত্রীর মন সমুদ্রের মতো বিশাল, তাই তিনি মাফ করতেও পারেন। কিন্তু যারা শেখ হাসিনাকে মায়ের মতো দেখেন, সেই নেত্রীকে নিয়ে কথা বলার পর সেই কর্মীরা আইভীকে আদৌ মাফ করতে পারবেন কিনা আমার সন্দেহ আছে।

মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেনকে ত্যাগী নেতা আখ্যায়িত করে শামীম ওসমান বলেন, ‘যদি আমাদের মাতৃতুল্য নেত্রী শেখ হাসিনা মনে করেন, নারায়ণগঞ্জের ত্যাগী নেতা আনোয়ার ভাইকে নারায়ণগঞ্জের মানুষের সেবা করার সুযোগ দেবেন, তাহলে আল্লাহকে সাক্ষী রেখে আমরা তার পক্ষে কাজ করব। শেখ হাসিনা যেটা বলবেন সেটাই শেষ কথা। রাজনীতি করি আর না করি, মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তার নির্দেশেই কাজ করে যাব। শেখ হাসিনার কথার বাইরে আল্লাহ যাতে আমাকে না যাওয়ায়।’

সভায় সভাপতির বক্তব্যে মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন সিটি মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীকে বিএনপি-জামায়াতের দোসর হিসেবে আখ্যা দিয়ে বলেন, হাজার চেষ্টা করেও কখনও আইভীকে বিএনপি-জামায়াতের বিরুদ্ধে কোনো সভা-সমাবেশে আনতে পারিনি। বরং আমাকে ফোন করে সেই সভা বন্ধ করার হুমকি দিতেন। আমি তার বাবার সঙ্গে রাজনীতি করেছি। এরপর তার সঙ্গে রাজনীতি করেছি। আমার সহযোগিতায় তিনি নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। আমি চেয়ার ছেড়ে দিয়েছিলাম বলেই তিনি পৌর আমলে নারায়ণগঞ্জ পৌরসভার মেয়র হয়েছিলেন। আর এখন তিনি বলেন কিনা আমি তার দয়াতেই মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি হয়েছি। তিনি আমাকে বেইমান বলেন। আমি আঘাত পেলেও তাকে কিছুই বলব না। শুধু আল্লাহর কাছে ফরিয়াদ জানাই আইভীকে যেন তিনি হেদায়েত করেন।

এর আগে দুপুর ৩টা থেকেই জেলার বিভিন্ন থানা এলাকা থেকে হাজার হাজার নেতাকর্মী ব্যানার-ফ্যাস্টুন নিয়ে জনসভায় যোগ দেন। বিকাল ৪টা নাগাদ পুরো মাঠ পরিপূর্ণ হয়ে যায় কর্মী সমাগমে। জনসভায় আরও উপস্থিত ছিলেন সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য হোসনে আরা বেগম বাবলী, তারাব পৌর মেয়র হাসিনা গাজী, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহা, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহীদ বাদল, মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি চন্দন শীল প্রমুখ।



সূত্রঃ দৈনিক যুগান্তর - ৩০ অক্টোবর, ২০১৬
অন্যান্য সংবাদ
ফটো গ্যালারী
  • নামাজের সময়সূচী

    রবিবার , ৩ জুলাই ২০১৬
    ওয়াক্ত শুরু জামাত
    ফজর ০৩.৫০ ০৪.০৫
    জোহর ১২.০৬ ০১.১৫
    আসর ০৪.৪২ ০৫.১৫
    মাগরিব ০৬.৫৪ ০৭.০০
    এশা ০৮.২০ ০৮.৩৫
    সূর্যোদয় : ০৫.১৪ মিঃ
    সূর্যাস্ত : ০৬.৫৪ মিঃ
  • অনলাইন জরিপ

    আজকের প্রশ্নঃ- 
    '' বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন,
    দেশের মানুষ একটা অস্থির-শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থার মধ্যে বাস করছে। ”
    তার কথার সাথে আপনিও কি একমত ?
  • অন্যান্য পাতাসমুহ

  • ভিজিটর কাউন্টার


    free hit counter
  • ভিজিটর তথ্য

    আপনার আইপি
    54.211.82.105
    আপনার অপারেটিং সিস্টেম
    Unknown
    আপনার ব্রাউজার
    " অপরিচিত "
  • বিজ্ঞাপন


    Propellerads